রোমেনা আফাজের সমাধিতে

ঠনঠনিয়া বাসস্ট্যান্ডে পৌছে দেখি ঢাকায় ফেরার গাড়ি থাকলেও টিকিট নেই। সবশেষে ছাড়বে যে বাসটা সেটা সদ্য রং করা হয়েছে, বডি থেকে রং এর গন্ধ পাওয়া যায়, ছাড়ার আগে সেখানে একটা ছোট মিলাদ হবে, অর্থ্যাৎ সাতটার আগে ছাড়বে না। ফলে নাইটকোচ ধরা ছাড়া উপায় থাকলো না আমাদের। শহর ঘুরতে শুরু করতে না করতেই দেখি বিশাল গোরস্থান, সেখানে শুয়ে আছেন রোমেনা আফাজ – দস্যু বনহুরের স্রষ্টা। 


রোমেনা আফাজ ১৯২৬ সালের ২৭ ডিসেম্বর বগুড়ার শেরপুরে এক মুসলিম সম্ভ্রান্ত পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবা কাজেম উদ্দিন ছিলেন পুলিশ ইন্সপেক্টর, মা আছিয়া খাতুন সাহিত্য অনুরাগী। শাজাহানপুর উপজেলার ফুলকোট গ্রামে ডা. আফাজ উল্লাহ সরকারের সঙ্গে তার বিয়ে হয়। রোমেনা মাত্র ৯ বছর বয়স থেকে লেখালেখি শুরু করেন। তার প্রথম লেখা ছড়ার নাম ছিল বাংলার চাষী। তৎকালে এ ছড়াটি কলকাতার মোহাম্মদী পত্রিকায় প্রকাশ পেয়েছিল। এরপর তিনি ছোট গল্প, কবিতা, কিশোর উপন্যাস, সামাজিক উপন্যাস, গোয়েন্দা ও রহস্য সিরিজ লেখেন। তার লিখিত বইয়ের সংখ্যা ২৫০টি। 


সাহিত্যকর্মের তালিকা:

দেশের মেয়ে: সামাজিক ও পারিবারিক

জানি তুমি আসবে: প্রণয়মূলক উপন্যাস

বনহুর: রহস্য সিরিজ

রক্তে আঁকা মাপ: দুঃসাহসিক অভিযান

মান্দিগোর বাড়ি: কিশোর উপন্যাস

অসামান্য প্রতিভার অধিকারী এই সাহিত্যিক ১২ জুন, ২০০৩ সালে মৃত্যুবরণ করেন৷

About দারাশিকো

নাজমুল হাসান দারাশিকো। প্রতিষ্ঠাতা ও কোঅর্ডিনেটর, বাংলা মুভি ডেটাবেজ (বিএমডিবি)। যোগাযোগ - [email protected]

View all posts by দারাশিকো →

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *